জয়নাল হাজারী আর নির্বাচন করবেন না।ফেনী আ:লীগের রাজনীতিতে নতুন মেরুকরণ!

received_1499400173505025.jpeg

জাহাংগীর আলম (শুভ)
১৯শে মে সন্ধা ৭.২২মি ফেনীর রাজনৈতিকবিষয়ে জানার জন্য ফোন করা হয়,ফেনী ২ আসনের ৩ বারের নির্বাচিত সাবেক এমপি জনাব,জয়নাল হাজারীকে। তিনি টাইমস বিডি নিউজকে স্পষ্ট জানিয়ে দেন। ফেনীর রাজনীতি নিয়ে কোন কথা বলতে রাজী নয়।
তাঁকে প্রশ্ন করা হয়:-আগামী ২০১৯সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে,নির্বাচন করার ইচ্ছা আছে কিনা?
উ:- প্রশ্নই আসেনা। কারন উল্লেখ না করে তিনি বলেন:-আমি আর কোনভাবে নির্বাচন করতেরাজী নই।ধরে নিতে পারেন ফেনীর রাজনীতি থেকে অবসর নিয়েছি।
প্রশ্ন:- যদি নেএী আপনাকে ডেকে নির্বাচন করতে বলেন, তখন?
উ:- তিনি তবু ও নির্বাচন করবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।
প্রশ্ন :- আপনি নির্বাচন যদি নাই করেন, তাহলে তাহলে কাকে সমর্থন দিবেন?
উ:-আমি বলেছি কোন নির্বাচন করবো না।যেখানে নির্বাচনই করবো না,সেখানে কাউকে সমর্থন দেওয়ার প্রশ্নই উঠেনা।
প্রশ্ন:-তাহলে কি ফেনীর রাজনীতি থেকে অনা নুষ্ঠানিক অবসর নিলেন?
উ:-ধরে নেন এমনটাই ।

৪মি:১৬সেকেন্ড কথোপকথনে তিনি বেশী কথা বলার সুযোগ না দিয়ে ফোন রেখে দেন। ২০০৪ সালে দল থেকে বহিস্কার করার ফলে তিনি অনেকটা রাজনীতি বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন।তিনি গত ১৫ই মে ফেসবুক লাইভে দেওয়া ভাষনে তার বহিস্কার না হওয়ার কথা তুলে ধরে বলেন:- নিয়মানুযায়ী কাউকে বহিস্কার করার পূর্বে কারন দশানো চিঠি দিতে হয়।চিঠির উওর সন্তোষ জনক না হলে তারপর বহিস্কার করার নিয়ম থাকলে ও তার কোনটাই আমার বেলায় করা হয়নি।
২০০১ সালে যৌথ বাহিনীর অভিযানে ৭বছর ভারতে পালিয়ে থাকার পর দেশে এসে আত্মসমর্পণ করে ৯ মাস পর জামিনে বের হন ফেনীর কিংবদন্তি এই নেতা।উল্লেখ ফেনীতে তাঁকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবেনা মর্মে নিজাম হাজারী এমপি ঘোষনায় এখনো আতংকিত ফেনীবাসী।কেন না,এক সময়ের রাজনৈতিক গুরুর সাথে শীর্ষের এমনতর আচরণে দলীয় এক কর্মীর মন্তব্য:-এই রকম কত শীর্ষ তৈরী করে ফেনীর বুকে ছেড়ে দিয়েছে বাইছা,এখনো বহু খেলা বাকী যা এখনো
নিজাম হাজারী টের পায়নি।
(ফেনীর রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব নিয়ে প্রতিবেদন আগামীকাল প

Comments

comments

Top