কেমন ছিল অর্গ্যাজমের প্রথম অভিজ্ঞতা? জানালেন মহিলারা

Ghost-Sex.jpg

 অর্গ্যাজম ছোট্ট শব্দেই লুকিয়ে যৌনতার সেই চরম সুখ যা মুহূর্তের মধ্যে সারা শরীরে ছড়িয়ে দেয় অনাবিল আনন্দ। বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে অর্গ্যাজম বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। এই লক্ষ্য পূরণই আসল পরীক্ষা সঙ্গীর ক্ষেত্রে। কেমন ছিল অর্গাজমের সেই প্রথম অভিজ্ঞতা? কীসে হয়েছিল বাজিমাত? প্রশ্নের উত্তর দিলেন মহিলারাই।

সিক্ততা- নারী শরীরের অন্দরে প্রবেশ করতে নাকি এই বিষয়টি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। অনেকেই এ বিষয়ে অতটা উৎসাহ দেখান না। কিন্তু লিজা  তেমনটা করেননি। কৃত্রিম উপায়েই সিক্ত করে তুলেছিলেন নিজের যৌনাঙ্গ। ফল হাতেনাতে পেয়েছিলেন লিজা। তাঁর জীবনের সেরা অনুভূতি পেয়েছিলেন।

orgasm

সময়- একবারে থেমে যাননি জেনেলিয়া  কারণ তিনি জানতেন নারী শরীরে অর্গ্যাজম একাধিকবার হতে পারে। ক্ষণিকের বিশ্রাম নিয়েই আবার নতুন করে শুরু করা যায়। তেমনটাই করেছিলেন তিনি। সঙ্গীর শরীরকে একটু উষ্ণ করে তুলতেই হয়েছিল কেল্লাফতে।

স্থান- এমন কোনও কথা নই যে সঙ্গম কেবল বিছানাতেই করতে হবে। টিউলিপের  ক্ষেত্রে তা হয়েছিল রান্নাঘরেই।  সেখানেই নিজের পোজিশন বেছে নিয়েছিলেন তিনি। যৌনতার ক্ষেত্রে কমফর্ট লেভেলই শেষ কথা। তাতেই নিজের প্রথম অর্গ্যাজম অনুভূতি পেয়েছিলেন ৩০ বছরের যুবতী।

orgasm_web

পদ্ধতি- বিশেষ কিছু পদ্ধতি সবসময় কাজে দেয়। জেনিফারের ক্ষেত্রে সেটা ছিল ক্লিটোরাল স্টিমুলেশন। ৫-৭ মিনিট বাড়তি সময় লেগেছিল। কিন্তু যখন চরম সেই অর্গ্যাজম  অনুভব করেছিলেন, তা ছিল অনবদ্য। সে সময়ের কথা আজও মনে পড়লে জেনিফারের শরীরে শিহরণ জাগে।

ইচ্ছে- যৌনতার সময় নিজের মনের ইচ্ছে সঙ্গীকে জানাতে কখনও কার্পণ্য করতে নেই। সানিও  প্রথমবার কার্পণ্য করেননি। নিজের শরীরের প্রত্যেকটি স্পর্শকাতর অঙ্গের কথা মন খুলে বলেছিলেন সঙ্গীকে। তাতেই আলাদা মাত্রা পেয়েছিল সানির প্রথম সঙ্গম। প্রথমবারেই হয়েছিল অর্গ্যাজম প্রাপ্তি।

 

 

 

Comments

comments

Top