পিজিআরকে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করে দায়িত্ব পালনের আহ্বান

Shekh-Hasina-md20170705154555.jpg

প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্ট (পিজিআর) সদস্যদের সর্বোচ্চ আত্মত্যাগ স্বীকার ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, পিজিআর সদস্যদের নিষ্ঠায় আমি মুগ্ধ। সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা এখন বিদেশেও দায়িত্ব পালন করছে। তারা যেন পিছিয়ে না থাকে সেজন্য প্রতিটি বাহিনীর সদস্যদের যুগোপযোগী করে গড়ে তোলার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। দেশকে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে প্রতিটি বাহিনীর সদস্যদের সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

বুধবার দুপুরে প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্টের (পিজিআর) ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা সেনানীবাসে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই তিনি বিভিন্ন ঘটনায় শহীদ পিজিআর পরিবারের সদস্যদের মাঝে উপহার সামগ্রী তুলে দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার নিজের হাতে এ বাহিনী প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধু একটি প্রতিরক্ষা নীতিমালাও করে গেছেন। সেই নীতিমালার আলোকেই আমরা প্রতিটি বাহিনীকে শক্তিশালী এবং যুগোপযোগী করে গড়ে তোলার পরিকল্পনা গ্রহণ করি।

শেখ হাসিনা বলেন, বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরা এখন জাতিসংঘ মিশনের বিভিন্ন স্থানে কাজ করছে। সেখানে উন্নত দেশের সৈনিকদের সঙ্গে কাজ করতে হয়। আমাদের সৈনিকরা যেন অন্য দেশের সৈনিকদের চেয়ে দক্ষতা এবং যোগ্যতায় পিছিয়ে না থাকে এজন্য বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া আমাদের সরকার সশস্ত্র বাহিনীসহ সব বাহিনীর সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করেছে। প্পিজিআর সদস্যদের ঝুঁকি ভাতা, আবাসন ব্যবস্থাসহ বেশ কিছু সুযোগ করে দিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবার মনে রাখতে হবে যে ৩০ লাখ শহীদের রক্তে অর্জিত আমাদের এ বাংলাদেশ। এ দেশকে যেন আমরা বিশ্বের দরবারে মর্যাদার আসনে দাঁড় করাতে পারি সে লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। বিশেষ করে সেনাবাহিনীসহ প্রতিটি বাহিনীর সদস্যদের সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

Comments

comments

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top